পাবজি খেলতে খেলতে গৃহবধূর সঙ্গে আলাপ-শারীরিক সম্পর্ক, অতঃপর…

অনলাইন গেম পাবজি খেলতে খেলতে পরিচয়। এরপর তা রূপ নেয় প্রেমে। আর সেই প্রেম থেকে শারীরিক সম্পর্ক। এবার সেই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে আদালতে হাজির যুবক। এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভারতে।

ভবিষ্যতে ফাঁসানো হতে পারে এমন শঙ্কায় কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হলেন কৃষ্ণ চৌরাসিয়া (৩২) নামের ওই যুবক। এমনকি যুবকের কথা শুনে উচ্চ আদালতে আগাম জামিনও দিয়েছেন। যুবকের বাড়ি ওড়িশার জলেশ্বরে। ব্যাঙ্গালুরুতে একটি সফটওয়্যার সংস্থায় কাজ করেন তিনি।

আদালতে যুবন জানান, মোবাইলে পাবজি খেলতে গিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদার বাসিন্দা সিজা সাহার সঙ্গে পরিচয় হয় তার। ২০২০ সালে করোনা মহামারির কারণে দেশে লকডাউন ঘোষণার পর জলেশ্বরে নিজের বাড়িতে এসেছিলেন কৃষ্ণ। সেখানে সিজার সঙ্গে প্রথম দেখা করেন তিনি।

আদালতকে কৃষ্ণ জানান, প্রথম দেখায় তাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। তাদের মধ্যে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক। ধীরে ধীরে তা গড়ায় শারীরিক সম্পর্কে। কিন্তু পরে কৃষ্ণ জানতে পারে সিজা বিবাহিতা। তার সাত বছরে সন্তানও আছে। তার পরকীয়া সম্পর্কের কথা জেনে যায় তার স্বামীও।

সিজা বিবাহিত এ কথা জানতে পেরে এ সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চান কৃষ্ণ। এরপর থেকে কৃষ্ণের বাবাকে মেরে ফেলার হুমকি দেন সিজার স্বামী। ভবিষ্যতে ধর্ষণের মামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন কৃষ্ণ। প্ররোচনা ও চক্রান্ত থেকে বাঁচতে আগাম জামিনের আবেদন করেন তিনি।

কৃষ্ণের আইনজীবী নভোনীল দে বলেন, আমার মক্কেলের কাছ থেকে অনেক টাকা হাতিয়েছেন ওই মহিলা। আগামী দিনে কৃষ্ণ কোনো চক্রান্তের শিকার যাতে না হন, সেই কারণেই হাই কোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করা হল।

কৃষ্ণের এই আবেদনের ভিত্তিতে বুধবার বিচারপতি দেবাংশু বসাক এবং বিচারপতি বিভাসরঞ্জন দে-র ডিভিশন বেঞ্চ আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছে। সূত্র: আনন্দবাজার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *